ফেসবুক বিজ্ঞাপন

বর্তমানে প্রযুক্তি অনেক উন্নত। অনেকেই ইন্টারনেট বলতেই ফেসবুককে বুঝে থাকেন। ফেসবুকে প্রবেশ করলে সহজেই বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন। হয়তো এ কারণেই ফেসবুক ইউজাররা দিনে অন্তত একবার হলেও চেকইন করেন। অনেকেই পত্রিকা পড়েন না। প্রযুক্তিনির্ভর এ সময়ে ফেসবুকেই সব ধরনের অনলাইন নিউজ পেয়ে যাচ্ছেন। তাই বিভিন্ন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান পত্রিকার বিজ্ঞাপনের ওপর নির্ভর না করে ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকেন। এতে সহজেই বিভিন্ন গ্রাহকের কাছে প্রতিষ্ঠান কিংবা পণ্যের তথ্য পৌঁছে দিতে পারছেন। তাই ফেসবুক বিজ্ঞাপন ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। আর আমাদের দেশে গতানুগতিক বিজ্ঞাপন দেওয়া হয় পেপার-পত্রিকায়, যা কিনা কোনো নির্দিষ্ট শ্রেণি বা বয়সের মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া সম্ভব নয়। এ জন্য অনেকেই ফেসবুককে বিজ্ঞাপনের অন্যতম মাধ্যম হিসেবে বেছে নিচ্ছেন।

আপনার ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়েছেন কিংবা এখনো দেননি এমন ব্যবহারকারীদের বিজ্ঞাপন দেখাবে ফেসবুক। এজন্য বিজ্ঞাপন দেয়ার সময় আপনাকে বিষয়টি নির্ধারণ করতে হবে। এর মাধ্যমে আপনার পেইজের লাইকও বাড়াতে পারেন। এছাড়া আপনার প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন ইভেন্টস, অফার, সংবাদ ফেসবুক পেইজে পোস্ট করে ‘বুস্ট’ অপশনের মাধ্যমে খুব সহজেই বিজ্ঞাপন দিতে পারেন।

ফেসবুক বিজ্ঞাপন কেন দিবেন?

  1. ফেসবুক পেইজে লাইক বাড়তে, পেজের প্রচার বাড়বে।
  2. লাইক বাড়ানোর মাধ্যমে অনেক মানুষ আপনার পেইজের সঙ্গে সম্পৃক্ত হবে।
  3. পেইজে কোন পোস্ট দিলে তা লাইক দেওয়া ব্যবহারকারীরা দেখতে পারবেন।
  4. অ্যাপ্লিকেশনের বিজ্ঞাপন দিলে অনেক ব্যবহারকারী অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করবে।
  5. ইভেন্টের বিজ্ঞাপন দিলে অনেক ব্যবহারকারী ইভেন্টে অংশ নিবে।
  6. কোন সংবাদের বিজ্ঞাপন দিলে ওয়েবসাইটে ভিজিটর বা পাঠক বাড়বে।
  7. আপনার ই-কমার্স সাইটের প্রোডাক্ট এর বিজ্ঞাপন দিলে আরো বেশি সেল হবে।

আপনার পেইজ লাইক বাড়লো তো ব্যবসাও বাড়লো। ফেসবুক সবসময় চেষ্টা করে বিজ্ঞাপন যেন সর্বোচ্চ সংখ্যক ইউজারের কাছে পৌঁছানো যায়। একই সাথে আপনার কাঙ্ক্ষিত ক্রেতা খুঁজে বের করাও এর কাজ। আপনি চাইলে একটি নির্দিষ্ট দেশে বিজ্ঞাপন চালাতে পারেন। আবার নির্দিষ্ট বয়সের ব্যবহারকারীর কাছেও পৌঁছাতে পারেন। একে বলা হয় কাষ্টমাইজড অ্যাড। নির্ধারিত বাজেটের বিজ্ঞাপন থেকে আপনি কতগুলো ফেসবুক লাইক পাবেন নির্দিষ্ট ভাবে বলা থাকে না। কারণ ফেসবুকের কাজ হচ্ছে আপনার বিজ্ঞাপন ব্যবহারকারীদের কাছে পৌঁছে দেওয়া। লাইক বা ভিজিটর নির্ভর করে আপনি বিভিন্ন ‘প্যারামিটার’ কিভাবে নির্ধারণ করছেন তার উপর। এই প্যারামিটার নির্ধারণের অন্যতম পর্যায় হচ্ছে বিজ্ঞাপন কোন দেশ, কোন বয়স, কোন লিঙ্গ, কোন ভাষার ব্যবহারকারী দেখবে। তবে বিজ্ঞাপনের বাজেট যত বেশি হবে ফলাফলও ততো ভালো হবে।

 

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published.